1. omsakhawat@gmail.com : admin :
  2. emaad55669@gmail.com : Sakhawat Ullah : Sakhawat Ullah
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৯:১৬ অপরাহ্ন
বিঃ দ্রষ্টব্য
★★ স্বাগতম আপনাকে আমাদের সাইটে ভিজিট করার জন্য!চাইলে আপনিও আমাদের সাথে যুক্ত হতে পারেন!  বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ করুন! ★★
শিরোনাম
দেশে এই প্রথম প্রতিষ্ঠিত হলো হিজামা বিষয়ক সংগঠন “হিজামা এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ” ৬২ শতাংশ ভোটে জয় পেলেন ‘কট্টরপন্থী’ ইব্রাহিম রাইসি দিনাজপুরসহ বিভিন্ন জায়গায় আবু ত্ব-হা আদনানের সন্ধানের দাবি শিগগিরই খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান উগ্র ইহুদিবাদীদের পতাকা মিছিল আজ; মসজিদুল আকসায় ফিলিস্তিনিদের সমবেত হওয়ার আহ্বান ভারতে নামাজ পড়তে যাওয়া বৃদ্ধকে মারধর করে দাঁড়ি কেটে দিয়েছে হিন্দুত্ববাদী সন্ত্রাসীরা! মঙ্গলবার থেকে বৃষ্টির প্রবণতা আরো বাড়তে পারে সিরিয়ার হাসপাতালে হামলা, শিশুসহ নিহত ১৮ শিশুর আগামী হোক স্বপ্নময় লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হতে চান গাদ্দাফির ছেলে!

অর্থনৈতিকভাবে স্ববালম্বী হতে চাকরি বা বিজনেস যেটা আপনার ইচ্ছা বেছে নিন আজই!

সুস্থ্য থাকতে মেনে চলুন কিছু হেলথ্ টিপস!

  • প্রকাশকাল : বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৮৫ পঠিত

 গোলাম কিবরিয়া

 সুস্থ্যতা  মহান আল্লাহ প্রদত্ত একটি বিশেষ নেয়ামত। আমাদের উচিৎ  আল্লাহ
প্রদত্ত এ বিশেষ নেয়ামতের শুকরিয়া আদায় করা। কিন্তু আমরা কতজন আল্লাহ প্রদত্ত এ মহান নেয়ামতের কদর করি এবং আল্লাহর কৃতজ্ঞতা আদায় করি? অনেকেই তো কখনও ভাবারও
সময় পাই না যে,আমাদের প্রতি আল্লাহ প্রদত্ত যে নেয়ামত রয়েছে, তার কৃতজ্ঞতা
আদায় করা উচিৎ!  অনেকেই অজ্ঞতাবশত এমন করে থাকি, অনেক আবার জনার পরও আমল করি
না ।

যাই হোক, এমনটি কখনোই  কাম্য নয়। সষ্ট্রার দেওয়া নেয়ামতের  যথার্থ
কৃতজ্ঞতা তখনই  আদায় হবে যখন আমরা  আচরণ-উচ্চারণে এর সঠিক ব্যবহার করতে পারবো। তাই এ বিষয়ে আমাদের যথেষ্ট সচেতন হতে হবে।

অনেক সময় আমাদের নিজেদের
অবহেলা-উদাসীনতা ও অজ্ঞতার কারণে কখন,কোন পরিস্থিতিতে আমাদের কী করতে হবে জানা থাকে না। ফলে প্রতিনিয়ত আমরা বিভিন্ন রোগ-ব্যাধিতে আক্রান্ত হতে থাকি এবং দুরারোগ্য কিছু ব্যাধি আমাদের শরীরে বাসা বাঁধে। তাই ছোট থেকে ছোট বিষয়েও আমাদের পর্যাপ্ত জ্ঞান থাকতে হবে।

এখানে আমরা গুরুত্বপূর্ণ কিছু স্বাস্থ্য টিপস্  নিয়ে আলোচনা করেছি, যেগুলো ফলো করে চললে আপনি বিভিন্ন সময় ও প্রতিকূল রিস্থিতিতেও  সুস্থ্য থাকবেন ইনশাআল্লাহ।

ক্লান্ত অবস্থায় শরীরচর্চা বা ব্যায়াম করুন:

বাইরে সারাদিন অক্লান্ত পরিশ্রমের পর বাসায় ফিরে আবার ব্যায়াম করুন। আপনি কি এই ভাবছেন যে, আপনি আরও বেশি ক্লান্ত হয়ে পড়বেন! কিন্তু তা নয়। বরং উল্টো ফলাফল পাবেন। ব্যায়াম বরং আপনাকে আরো বেশি তরতাজা করে তুলবে, মনকে প্রফুল্ল রাখাবে, এতে আপনি সারাদিনের হারিয়ে যাওয়া শক্তি ফিরে আনবে। এমনকি দূর করে দেয়
খারাপ ভাবনা! বিশ্বাস যদি না হলে আজ থেকে নিজেই পরীক্ষা করে দেখতে পারেন এর বিশেষ সুফল।

মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বাড়াতে হাতে লিখুন:

আমরা এখন সাধারণত লেখালেখির সব ধরণের কাজ কম্পিউটার দ্বারা করে অভ্যস্ত হয়ে থাকি। কিন্তু এক বিশেষ গবেষণায় দেখা যায় যে,সবচেয়ে কার্যকরী হয়, কোন কিছু মনে রাখতে চাইলে তা  হাতে লিখে মনে রাখার চেষ্টা করা। এর মাধমে আপনার মস্তিষ্ক আরো। বেশি সজাগ থাকে বলে জানা যায়। মনে করে দেখুনতো ছোটবেলায় আমরা কিন্তু এভাবেই পড়াগুলো মুখস্থ করতাম!

এখন থেকেই যখন যা কিছু শিখবেন,সবসময় কম্পিউটারে টাইপ না
করে মনে রাখতে চাইলে তা কাগজে কলমে লিখে দেখুন, বেশি মনে থাকবে। এটি এক দিকে যেমন আপনার হাতের লেখা ভালো হবে অন্য দিকে আপনাকে মনে রাখার বিশেষ সয়তা করে থাকবে।

 ক্লান্তিকর সময় এনার্জি ড্রিংক্স নয়:

আপনি জানেন কি ? এনার্জি ড্রিংক্স কফির তুলনায় সাধারণত ৬ গুণ বেশি ক্যাফেইন সমৃদ্ধ একটি পানীয়। কিন্তু এনার্জি ড্রিংক্স স্বল্প সময়ে জন্য এনার্জি তৈরি করে থাকে, যা আপনার স্বাস্থ্যের জন্য আরও বেশি ক্ষতিকর হয়ে দাঁড়ায়। এতে উপকারের চেয়ে আপনাকে নার্ভাস করে দেয়, এতে আপনার পালস বেড়ে যায়।

ফলে তাৎক্ষণিক শক্তি পাওয়া গেলেও পড়ে  আপনাকে আরো বেশি দুর্বল করে দেয় এবং দ্রুতই ঘুম পায়, গা ছেড়ে দিয়ে থাকে। যা শরীরের জন্য উপকারের চেয়ে ক্ষতির পরিমান বেশি হয়ে থাকে।

    ছোট কাপড়ে ফিট হতে ওজন বাড়ান:

ছোট কাপড় সাধারণত নির্ভর করে শরিরের মাংসপেশির ধরনের উপর। আপনি যখন নিয়মিত ব্যায়াম করেন, তখন ওজন কম হয় না বরং বেড়ে যায়।

তাই আপনি অনায়াসেই  আপনার আগের ব্যবহারকৃত পছন্দের কাপড়গুলো পরিধান করতে পারেন। আপনি কি জানেন কেন হয় এটা? কারণ ব্যায়াম আপনার বাড়তি মেদ কমিয়ে থাকে। সাধারণত মেদহীন পেশি কম জায়গা নিয়ে থাকে, তার ফলে ওজন বাড়লেও পুরাতন কাপড় পরা যায় খুব সহজেই।

 কম খেতে হলে প্রোটিন জাতীয় খাবার বেশি খান:

আমরা অনেক সময় দেখা যায় যে কম কার্বোহাইড্রেট খেতে গিয়ে আমরা এতই কম খেয়ে ফেলি যে ক্ষুধা লাগে কিছুক্ষণ পরপর। আপনি ভাবছেন কী খাবেন তাহলে? বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এক্ষেত্রে আপনি প্রোটিন জাতীয় খাবার যেমন ধরুন বাদাম ও পনির এই জাতীয় খাবার খেতে পারেন।

আপনি কি ভাবছেন যে এগুলোতে তো প্রচুর ফ্যাট থাকে, তাই না?? তবে এই জাতীয় খাবার অনেক সময় ধরে আপনাকে ক্ষুধার অনুভূতি থেকে বিরত রাখবে। এতে আপনার দ্রুত ক্ষুধার অনুভূতি কাটবে। এমনকি ভারী খাবার না খেয়েও অনেক সময় কাটাতে পারবেন।আপনার এক দিকে যেমন সময় বাঁচবে ও তেমনি ভারী খাবারের চাহিদা কম হবে।

   খাওয়ার পরপরই দাঁত ব্রাশ করবেন না:

আপনি সাধারণত সুস্থ্ দাঁত রাখার জন্য দাঁত ব্রাশ অবশ্যই করেন। কিন্তু আপনাকে  খাওয়ার একদম পরেই যে দাঁত ব্রাশ করবেন তা নয়। আপনার বরং এতে ক্ষতি  হতে পারে কারণ  টুথপেস্টের মধ্যে যে রাসায়নিক থাকে তা আপনার খাদ্যের উপাদানের  সাথে বিক্রিয়ায় দাঁতের ক্ষতি হয়ে থাকে।

তাই আপনি রাতের খাবার খাওয়ার পর কিছু সময় অপেক্ষা করুন। এই সময়ে একটু পায়চারি করলে দোষের কিছু নেই। পায়চারি করা হলো এক ধরণের ব্যায়াম।

পোস্টটি ভালো লাগলে আপনার মতামত জানান এবং শেয়ার করুন। ধন্যবাদ!


Deprecated: Theme without comments.php is deprecated since version 3.0.0 with no alternative available. Please include a comments.php template in your theme. in /home/ourmedia24/public_html/wp-includes/functions.php on line 5061

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো খবর
© All rights reserved 2020 ourmedia24. কারিগরি সহায়তায়ঃ
Theme Customized By BreakingNews